রবিবার, জুন ১৬, ২০২৪
Homeফিচারপৃথিবীর মতো সৌরজগতের অন্য গ্রহের ভূমিকম্প হয় কিনা চলুন জেনে নেই।

পৃথিবীর মতো সৌরজগতের অন্য গ্রহের ভূমিকম্প হয় কিনা চলুন জেনে নেই।

প্রথমে জানা উচিত, ভূমিকম্প কেনো হয়?
এর উত্তর জানলে, গ্রহগুলোর গঠন জেনে খুব সহজেই ধারণা করা সম্ভব সেখানেও হয় কিনা। ভূমিকম্প হওয়ার প্রধাণ কারণ, আমরা জানি ভূ-গর্ভে বিশালাকার কিছু শিলা রয়েছে যারা গতিশীল বা নড়াচড়া করতে পারে। এদের টেকটোনিক প্লেট বলা হয়। আর এদের অবস্হানও খুব কাছাকাছি পরস্পরের স্বাপেক্ষে। গতিশীল অবস্হায় কখনও এমন হয় যে একটি অপরটির সাথে ঘর্ষণ সৃষ্টি করে বা ধাক্কা লাগে। এতে সেখানকার শিলাস্তরের কিছু অংশ ভেঙ্গে যায় আর এ ঘর্ষণ বা ধাক্কার ফলে সৃষ্টি হয় শক্তিতরঙ্গ, যা সিসমিক তরঙ্গ নামে পরিচিত এবং তা ঢেউয়ের আকার চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। যেহেতু ঢেউ আকারের, তাই যখন সিসমিক ওয়েভ ভূ-পৃষ্ঠ বরাবর প্রবাহিত হয় তখনই মাটি কেঁপে ওঠে, যাকে ভূমিকম্প বলি আমরা।

তাহলে, ভূমিকম্প হওয়ার প্রধান শর্ত হচ্ছে, গ্রহের অভ্যন্তরে টেকটোনিক প্লেটের অস্তিত্ব থাকতে হবে এবং তারা অ্যাক্টিভ বা সক্রিয় থাকতে হবে। সৌরজগতের যদি জোভিয়ান গ্রহগুলোর (বৃহস্পতি থেকে নেপচুন) গঠন দেখি তবে তাদের অভ্যন্তরে এমন কোন শিলাস্তর নেই, বরং তারা গ্যাসীয়। তাদের অভ্যন্তরে শক্ত বলতে শুধু কোরটিই। কিন্তু টেকটোনিক প্লেটের অবস্হান ক্রাস্ট বা পৃষ্ঠ এবং কোরের মধ্যবর্তী জায়গায়৷ সুতরাং তাদের ক্ষেত্রে ভূমিকম্প হয় না।

কিন্তু টেরেস্ট্রিয়াল গ্রহগুলোর (বুধ > মঙ্গল) গঠন শিলাময় ও পাথুরে। আর, এদের অভ্যন্তরে আছে এমন টেকটোনিক প্লেটের অবস্হান। এর মধ্যে বুধের টেকটোনিক প্লেটের গতি অনেক আগেই নিষ্ক্রিয়ও হয়ে গিয়েছে। শুক্রের ভূ-প্রাকৃতিক অবস্হা ও পরিবেশ পর্যবেক্ষণপূর্বক তার অভ্যন্তরে টেকটোনিক প্লেটের অ্যাক্টিভিটি থাকার কথা ধারণা করেছেন বিজ্ঞানীরা। তাই সেখানেও হয়তো ভূমিকম্প হয়, তবে কেমন মাত্রায় তা শনাক্ত করা সম্ভব হয় নি এখনও।

তবে, মঙ্গল গ্রহে বিভিন্ন অভিযানে সিসমোমিটার প্রেরণের মাধ্যমে বিজ্ঞানীরা নিশ্চিত হয়েছেন সেখানে সিসমিক ঘটনা বা ভূমিকম্পের মতো ঘটনা ঘটে।
তবে শুধু যে টেকটোনিক প্লেটের ঘর্ষণেই ভূ-কম্পন হয়, তা নয়। বরং ভূ-অভ্যন্তরঃস্হ চাপের তারতম্যের কারণে গ্যাস ও ম্যাগমার উর্দ্ধমুখী চাপের ফলেও মাটি কেঁপে ওঠে। ফলে ভূ-কম্পন হয়। তবে তা টেকটোনিক প্লেটের সিসমিক ওয়েভের মতো এতো শক্তিশালী হয় না। এছাড়া, মহাশূণ্য হতে অনেক উল্কা বা উল্কাসদৃশ বস্তু গ্রহের পৃষ্ঠে সজোড়ে আছড়ে পড়ার ফলেও ঘটে ভূমিকম্পের মতো ঘটনা।

আরও পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ খবর

জনপ্রিয়